ফেইসবুকই হতে পারে আপনার বিজনেস ও মার্কেটিং এর অন্যতম মাধ্যম

ফেসবুক অনেকেই অনেক কাজে ব্যাবহার করে থাকেন । কেউ বন্ধু খুজে পেতে, কেউ নিজের পরিচিত জনদের খোঁজ খবর রাখতে, আবার কেউ বা নিজের বা প্রতিষ্ঠানের প্রচার ও প্রসার ঘটাতে। আমাদের বাংলাদেশ এর প্রেক্ষাপটে ফেইসবুক সেই মাধ্যম যার সাহায্যে খুব সহজেই আপনি আপনার বিজনেস এর প্রসার ঘটাতে পারেন এবং সেই সাথে অনেক ক্রেতার কাছে পৌঁছাতে পারেন খুব সহজে ও সম্পূর্ণ ফ্রীতে।

ফেসবুকে নিজের পণ্য বা কোম্পানির প্রচারনার জন্যই আপনি একটা ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুললেই হয়ে যাবে না, কারন একটা অ্যাকাউন্ট এ আপনি ৫০০০ এর বেশি মানুষকে যুক্ত করতে পারবেন না। অথচ আপনি যদি একটা ফেসবুক ফ্যান পেজ খুলে নেন সেখানে ৫০ লক্ষ মানুষের বিচরন থাকলেও কোন সমস্যা হবে না।

তাহলে আর দেরি না করে এখনই তৈরি করে ফেলুন আপনার বিজনেস এর একটি ফেইসবুক ফ্যান পেজ । আর এটা খুলতে আপনাকে একটা পয়সাও খরচ করতে হবে না, এটা সম্পূর্ণ ফ্রি ।

এখন কাজ হল এটাকে কিভাবে সাজাবেন। ধরুন আপনি সি এফ এল বাল্ব বা এনার্জি সেভিং লাম্প নিজেরা ইমপোর্ট এবং বিক্রি করে থাকেন এবং আপনাদের একটা কোম্পানি আছে। আপনার উদ্দেশ্য হল নিজের প্রোডাক্ট সম্পর্কে আপনার ফ্যানদেরকে জানাবেন সেই সাথে আপনার কোম্পানির ব্র্যান্ড টাকেও ধীরে ধীরে উন্নতির দিকে নিয়ে যাবেন।

ধরে নিলাম আপনার পেজ খুলা হয়ে গেছে । এখন কাজ হল এটাকে কিভাবে সাজাবেন। ধরুন আপনি এনার্জি সেভিং লাম্প নিজেরা ইমপোর্ট এবং বিক্রি করে থাকেন এবং আপনাদের একটা কোম্পানি আছে। আপনার উদ্দেশ্য হল নিজের প্রোডাক্ট সম্পর্কে আপনার ফ্যানদেরকে জানাবেন সেই সাথে আপনার কোম্পানির ব্র্যান্ড নেমটাকে ধীরে ধীরে উন্নতির দিকে নিয়ে যাবেন।

এবার আসি কিভাবে নিজের পণ্য এবং কোম্পানির প্রচার করবেন ?

একটা ব্যাপার মাথায় রাখবেন পেজ সাজানো লাগবে একবার, কিন্তু আপনি পোস্টের মাধ্যমে আপনার পণ্য বা কোম্পানির প্রচার করার সুযোগ পাবেন বারবার। সেই ক্ষেত্রে আপনার পণ্য কেনার জন্য আপনাকে ভালো মানের ইনফর্মেশন দিতে হবে। সেখানে এমন কিছু প্রচার করা যাবে না যাতে করে আপনার পেজে যারা লাইক দিয়েছে (আপনার ফ্যান) তারা এটাকে খারাপ চোখে দেখে। যেমন আপনার পেজ হল এনার্জি সেভিং লাম্প নিয়ে এখন সেখানে যদি আপনি কম্পিউটার বা মোবাইল নিয়ে আলোচনা করে থাকেন তবে সেটা হবে একটা বিশাল খারাপ দিক। এটা আপনার বিজনেস এর জন্য নেগেটিভ মার্কেটিং এর কাজ করবে , যা আপনার বিজনেস এর জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে ।

যারা আপনার পেজে লাইক দিয়েছে তাদেরকে কিভাবে আপনার প্রোডাক্ট বা কোম্পানির সাথে সম্পৃক্ত রাখবেন, সেই সম্পর্কে কিছু টিপস দেখে নিন।

প্রোফাইলে আপনার প্রোডাক্ট বা কোম্পানির লোগো ব্যাবহার করতে পারেন।আর অবশ্যয় প্রফেশনাল লুক এর দিকে খেয়াল রাখতে হবে । যেনতেন ভাবে লোগো বা ব্যানার ইমেজ দিয়ে রাখবেন না ।

কভার ফটোতে সকল প্রোডাক্ট বা কোম্পানির একটা ছবি ব্যাবহার করতে পারেন। তবে সেক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে ছবিটা যেন দেখতে খুব সুন্দর হয়।

সব সময় চেষ্টা করুন একটা ছবি পোস্ট করতে এবং সেখানে ওই ছবি রিলেটেড কিছু কথা লিখতে ভুলবেন না। ( গবেষণায় দেখা গেছে শুধু লেখার চাইতে লেখা সহ ছবিতে লাইক পরে অনেক বেশি)।

নিজের প্রোডাক্ট টিকে সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করুন। যেন আপনার পেজে যারা লাইকার আছে তারা খুশি হতে পারে। সেক্ষেত্রে আপনি একবার ভেবে দেখুন যে আপনি এই পেজে লাইক দিয়েছিলেন এবং আপনি এই পোস্ট টা দেখে কতটুকু খুশি হতে পারছেন ??

পোস্টে আপনার প্রোডাক্ট এর গুনগান বেশী না করে ওই প্রোডাক্টটি কাস্টমারের কি কি চাহিদা পূরণ করবে সে সম্পর্কে লিখুন ।

আপনার এই প্রোডাক্ট বা কোম্পানিকে সফলতার পর্যায়ে নিয়ে যাবার জন্য আপনি কি কি কাজ এখন পর্যন্ত করেছেন সেটা পেজের মাধ্যমে জানাতে পারেন।

নতুন কোন ক্লায়েন্ট এর সাথে নতুন কোন চুক্তি হলে অবশ্যই সেটা আপনার ফ্যান পেজে দিতে ভুলবেন না ।

সামনের দিনে সকলের জন্য কি কি ধরনের প্রোডাক্ট আনার চিন্তা করেছেন সেটাও সবাইকে জানাতে পারেন।

নতুন প্রোডাক্ট আনার আগে আপনার পেজে একটা সমিক্ষা চালিয়ে দেখতে পারেন যে যাদের জন্য আপনার এই প্রোডাক্ট তারা ব্যাপারটাকে কেমন ভাবে নিচ্ছে। মানে হালকা মার্কেট রিসার্চ করে নিতে পারেন।

আপনার যদি ওয়েবসাইট থাকে তবে ওয়েবসাইট থেকে পণ্যের লিংক গুলো আপনার ফেইসবুক পেজ এ লিংক করে দিতে পারেন।

এই যে এতকিছু করছেন কার জন্য, কাদের জন্য ?? উত্তর টা হবে আপনার ফ্যান পেজে যারা লাইক দিয়েছে ঠিক তাদের জন্য। এখন আপনার সেই পেজে যদি লাইক খুব কম থাকে তবে আপনি অনেক প্রচার করেও আপনার লক্ষ প্রসার করতে পারবেন না। তাই অবশ্যয় বিভিন্ন ফেইসবুক পাবলিক গ্রুপে আপনার পেজটির পোস্ট গুলো শেয়ার করতে থাকুন। ইনশাল্লাহ একসময় কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জন করে ফেলবেন ।

সব শেষে বলে রাখি, লক্ষ্য ঠিক করে কাজ করুন আর বিপদে ভেঙে পড়বেন না । আপনার একটা দরজা যদি বন্ধ হয়ে যায় , মনে রাখবেন আর একটি খোলা দরজা ঠিক আপনি পেয়ে যাবেন ।

One Response to “ফেইসবুকই হতে পারে আপনার বিজনেস ও মার্কেটিং এর অন্যতম মাধ্যম”

  1. adidas ultra says:

    I and my friends were actually looking at the good information on the blog then before long got a terrible feeling I never thanked the blog owner for those techniques. My boys are already as a result warmed to read them and have now truly been having fun with them. Appreciate your really being simply kind and also for making a decision on this kind of fantastic themes most people are really eager to understand about. Our own sincere apologies for not expressing appreciation to sooner.

​Leave a Comment

Comment authors age:




জেনে নিন মার্কেটিং এর গুরুত্তপুর্ন কিছু টিপস

How to do Business Marketing by Facebook